জয়পুরহাটে জামায়াতের ১৯ নেতাকর্মী আটক

0
79

জনসমর্থনহীন সরকার অবৈধভাবে ক্ষমতায় থাকার জন্যই সারা দেশে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করা শুরু করেছে। আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নামে প্রহসনের নাটক করার উদ্দেশ্যেই সরকার সারা দেশে ব্যাপকভাবে গ্রেফতার অভিযান শুরু করেছে। এ থেকে স্পষ্ট প্রতীয়মান হচ্ছে যে সরকার কোনক্রমেই অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে রাজী নয়।

নাশকতার পরিকল্পনা নিয়ে গোপন বৈঠকের অভিযোগে জয়পুরহাটের ধলাহার ইউনিয়ন জামায়াতের আমির আসাদুজ্জামানসহ (৫৫) ১৯ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকালে সদর উপজেলার ধলাহার উচ্চ বিদ্যালয় জামে মসজিদের ভেতর বৈঠক করার সময় তাদের আটক করা হয়।

জয়পুরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম জানান, জয়পুরহাট সদর উপজেলার ধলাহার উচ্চ বিদ্যালয় জামে মসজিদের ভিতরে জেলার বিভিন্ন এলাকার বেশ কিছু মানুষ একত্রিত হয়ে গোপন পরিকল্পনা করছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার সকালে ওই মসজিদটি ঘিরে ফেলে পুলিশ।

এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বেশ কিছু মানুষ পালিয়ে গেলেও ধলাহার ইউনিয়ন জামাতের আমীর আসাদুজ্জামানসহ ১৯ জন জামাতের নেতা-কর্মীকে আটক করা হয়। তাদের কাছ থেকে বেশ কিছু জিহাদি বই উদ্ধার করা হয়। আটককৃত জামাতের আমির আসাদুজ্জামান ধলাহার মালেক পাড়া গ্রামের মৃত মোজাম্মেল হকের ছেলে।

আটককৃত অনান্যরা হলেন- জয়পুরহাট সদর উপজেলার কইকুড়ি গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে সফিকুল ইসলাম (৪৫), মৃত ছুমির উদ্দিনের ছেলে আমজাদ হোসেন (৫৫), রামকৃষ্ণপুর গ্রামের ওসমান গনির ছেলে হুজায় হোসেন (৫০), শেখপাড়া গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে সিরাজুল ইসলাম (৩৫), মৃত সাহারুদ্দিনের ছেলে রজলুর রহমান (৬০), বালিয়াতর গ্রামের মৃত মেছের উদ্দিনের ছেলে আব্দুস সালাম (৫৫), শরিফ উদ্দিন মন্ডলের ছেলে তোফাজ্জল হোসেন (৪৪), ছফের আলীর ছেলে সাদেক মন্ডল (৫০), ধলাহ্ার গ্রামের মৃত আইন উদ্দিনের ছেলে জি এম হোসেন ওরফে জিম (৪০), মৃত আব্দুল গনির ছেলে নেছার উদ্দিন (৫২), জিয়াউর রহমানের ছেলে বাবু মিয়া (২২), থিপুর গ্রামের ইসমাইল হোসেনের ছেলে শোয়েব ইসলাম (৩৮), জালাল উদ্দিনের ছেলে এনামুল হক (৪২), রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত আবু বক্করের ছেলে কাওসার রহমান (৩২), ইসমাইল হোসেনের ছেলে ফেরদৌস আলম (৪৮), কল্যাণপুর গ্রামের গ্রামের আকবর দেওয়ানের ছেলে আনোয়ার হোসেন (৩২), মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে রবিউল ইসলাম (৪২) ও আটঠোকা গ্রামের মৃত সামসুদ্দিনের ছেলে মোতাহার হোসেন (৩৬)।

আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান ওসি।

ঢাকাটাইমস

Facebook Comments

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here