চাঞ্চল্যকর তথ্যঃ বাংলাদেশে ৩টি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করছে ভারত !

0
354

বাংলাদেশে ৩টি অর্থনৈতিক জোন প্রতিষ্ঠা করবে প্রতিবেশি দেশ ভারত। বাংলাদেশে বিনিয়োগ প্রবাহ বাড়ানোর সুবিধার জন্য মংলা, ভেড়ামারা ও মিরশ্বরাইয়ে তিনটি অর্থনৈতিক অঞ্চল করছে ভারত। আগামী বছরের মধ্যে মংলায় ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল (আইইডেজ) চালু হচ্ছে। পাইপলাইনে থাকা বাংলাদেশে ভারতীয় বিনিয়োগের পরিমাণ হাজার কোটি ডলারে উন্নীত হয়েছে।

গতকাল ভারতীয় হাইকমিশন থেকে দেয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে। এতে জানানো হয়, ভারতীয় কোম্পানী সাকাতা আইএনএক্স কারখানা স্থাপনের জন্য মেঘনা শিল্প অর্থনৈতিক অঞ্চলের (এমআইইজেড) সাথে জমির ইজারা চুক্তি করেছে। এতে এক কোটি ডলার বিনিয়োগে একটি কালির কারাখানা স্থাপনে হবে। কারখানায় ১০০ মানুষের কর্মসংস্থান হবে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা, বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বিইজেডএ) চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী, মেঘনা গ্রুপের চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল ও সাকাতা আইএনএক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ভি কে শেঠ উপস্থিত ছিলেন।

সুত্রঃ ‌নয়াদিগন্ত

বিস্তারিত পড়ুনঃ বাংলাদেশে ৩টি অর্থনৈতিক জোন প্রতিষ্ঠা করবে ভারত

বাংলাদেশে ৩টি অর্থনৈতিক জোন প্রতিষ্ঠা করবে প্রতিবেশি দেশ ভারত। বিনিয়োগ সম্ভাব্যতা যাচাই করে প্রয়োজনে আরও কয়েকটি অর্থনৈতিক অঞ্চল করবে ভারত। বাংলাদেশের মংলায় ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করবে দেশটির হিরানান্দানি গ্রুপ। গতকাল ভারতীয় হাইকমিশন থেকে দেয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

ইতোমধ্যে ওই গ্রুপের উর্ধতন কর্মকর্তারা মংলায় প্রস্তাবিত ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল এলাকা পরিদর্শন করেছেন। খবর বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল (বেজা) সূত্রের।

সূত্র জানিয়েছে, বাংলাদেশে ২০৩০ সাল নাগাদ ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার। এর মাধ্যমে কোটি লোকের কর্মসংস্থান হবে একদিকে অন্যদিকে অতিরিক্ত ৪০ বিলিয়ন ডলারের রপ্তানি করবে বাংলাদেশ। এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিভিন্ন দেশ বিনিয়োগে আগ্রহী। বিশেষ করে চীন, ভারত ও জাপানের আগ্রহ বেশি।

বেজা সূত্র জানিয়েছে, অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে ভারতীয় উদ্যোক্তারা বড় অঙ্কের বিনিয়োগ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। বিনিয়োগ বাড়াতে ভারত এদেশে প্রথম পর্যায়ে তিনটি অর্থনৈতিক অঞ্চল করতে যাচ্ছে। সূত্র জানিয়েছে, ২০১৫ সালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরকালে তাদের অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য জমি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। পরে দুই দেশের জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় যে, মিরসরাই তৃতীয় স্থান হতে পারে।

বেজা সূত্র আরও জানায়, ভেড়ামারায় জমির আকার হতে পারে ৪০৬ একর। অন্যদিকে মোংলায় জমির আকার হতে পারে ১০০ একর। মোংলায় এত ছোট হওয়ার কারণ সেখানে পর্যাপ্ত জমি নেই। . বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল (বেজা) সূত্র জানায়, হিরানান্দানি গ্রুপ প্রতিনিধিরা মংলায় অর্থনৈতিক অঞ্চল এলাকায় কয়েকটি অবকাঠামো নির্মাণের অনুরোধ করেছে। বাকি দুটি ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল হবে কুষ্টিয়ায় ভেড়ামারা ও চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে।

এছাড়াও মুন্সীগঞ্জে ভারতের জন্য দুটি আইসিটিভিত্তিক অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে।

সূত্র মতে, বাংলাদেশে এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য ভারত মোট ২৭৮ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে। যার মধ্যে আইসিটিভিত্তিক অর্থনৈতিক অঞ্চলে সব বিনিয়োগকারীদের জন্য খোলা থাকবে।

জানা গেছে, মংলা অর্থনৈতিক অঞ্চলের ডেভেলপার নিয়োগ সম্পন্ন হয়েছে। মীরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল (প্রথম পর্যায়) ডেভেলপার নিয়োগের জন্য নির্বাচিত ডেভেলপারকে লেটার অব এ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে।

বাংলাদেশের বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ১০০টি ‘স্পেশাল ইকোনমিক জোন’ গড়ে তোলা হচ্ছে। ইতোমধ্যে বিশ্বের অনেক দেশের বিনিয়োগকারীরা এখানে বিনিয়োগ করতে এগিয়ে এসেছেন। প্রত্যেকটি দেশের জন্য আলাদা করে ‘স্পেশাল ইকোনমিক জোন’ থাকবে। সরকার বিনিয়োগকারীর জন্য বিশেষ সুবিধা ঘোষণা করেছে। বিনিয়োগকারীরা এখন শতভাগ বিনিয়োগ করতে পারেন এবং যেকোনো সময় লাভসহ বিনিয়োগকৃত অর্থ ফিরিয়ে নিতে পারবেন।

তোফায়েল আহমেদ আরও বলেন, ইতোমধ্যে স্পেশাল ইকোনমিক জোনে জাপান, কোরিয়া, চীন, ভিয়েতনাম, ভারতসহ অনেক দেশ বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আরো অনেক দেশে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। আশা করা হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত স্পেশাল ইকোনমিক জোন দেশে শিল্পয়নে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনবে।

সম্প্রতি বাংলাদেশ সফরকালে ভারতের বাণিজ্য, শিল্প ও বেসামরিক বিমান চলাচলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু বলেন, বাংলাদেশে এখন বিনিয়োগ দরকার। এতে কর্মসংস্থান হবে। ভারত বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে পারে। এতে কর্মসংস্থান বাড়বে; বাড়বে সরবরাহ। এ জন্য যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত হওয়া দরকার। ভারত রেলসহ বিভিন্ন খাতে যৌথভাবে কাজ করতে আগ্রহী। পর্যটন খাতে যৌথ বিনিয়োগ হতে পারে।

সুত্রঃ ‌বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল (বেজা)

Facebook Comments

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here